ঢাকা, শুক্রবার, আগস্ট ১৪ ২০২০,

এখন সময়: ১০:২৪ মিঃ

গত ১০ জাতীয় নির্বাচনের ফলাফল

সুহৃদ জাহাঙ্গীর | ০৪:১৩ মিঃ, নভেম্বর ৫, ২০১৭



২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনসহ ১৯৭৩ সাল থেকে স্বাধীন বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হয় মোট ১০টি নির্বাচন। এর মধ্যে সর্বশেষ দেশে ২ বছর জরুরি অবস্থা থাকার পর ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নবম সংসদ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে আবার গণতান্ত্রিক সরকার গঠিত হয়। এতে আওয়ামী লীগ ২৩০ আসনে জিতে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়। বিএনপি ২৯, জাপা ২৭, জাসদ ৩, ওয়ার্কার্স পার্টি ২, জামায়াত ২, এলডিপি ১, বিজেপি ১, স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৪টি আসনে জয়ী হন।

১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মোট ১৪৭টি আসনে নির্বাচন হয়৷ কারণ এর আগেই ১৫৩টি আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে যান৷ সব মিলিয়ে তাদের মোট আসন সংখ্যা দাড়ায় ২৩২টিতে৷

জাতীয় পার্টি নির্বাচনে পেয়েছে ১৩টি আসন৷ আর বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পেয়েছে ২০টি৷ সব মিলিয়ে জাতীয় পার্টির আসন সংখ্যা ৩৩টি৷ ওয়াকার্স পার্টি নির্বাচনে ৪টি এবং বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ২টি আসন পেয়েছে৷ সব মিলয়ে তাদের আসন ৬টি৷ জাসদ নির্বাচনে ৩টি এবং বিনা প্রতিদ্বন্বিতায় ২টি আসন পেয়েছে৷ সব মিলিয়ে তাদের আসন ৫টি৷ এছাড়া, জেপি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ১টি৷ নির্বাচনে বিএনএফ পেয়েছে একটি আসন৷ নির্বাচনে তরিকত ফেডারেশন ১টি৷ আর নির্বাচনে স্বতন্ত্র ১৩ জন প্রার্থী জয়ী হয়েছে৷

দশম নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দুই তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠাতা পায়৷ নবম জাতীয় সংসদের সর্বদলীয় নির্বাচনেও আওয়ামী লীগ দুই তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠাতা পেয়েছিল৷ সেই নির্বাচন হয়েছিল তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে৷ এবার প্রধান বিরোধী দল বিএনপির নির্বাচন বর্জনের মধ্য দিয়ে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হয়৷

১৯৭৩ সালের ৭ মার্চ অনুষ্ঠিত প্রথম সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ২৯৩ আসনে জিতে সরকার গঠন করে। এর মধ্যে জাসদ ১, বাংলাদেশ জাতীয় লীগ ১ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৫টি আসন পান। ১৯৭৯ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি ২০৭টি আসন পায়। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ (মালেক) ৩৯, আওয়ামী লীগ (মিজান) ২, জাসদ ৮, মুসলিম লীগ ও ডেমোক্রেটিক লীগ ২০, ন্যাপ (মোজাফ্ফর) ১, বাংলাদেশ জাতীয় লীগ ২, বাংলাদেশ গণফ্রন্ট ২, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল ১, বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক আন্দোলন ১, জাতীয় একতা পার্টি ১ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ১৬টি আসনে জিতেন।

তৃতীয় সংসদ নির্বাচন ১৯৮৬ সালের ৭ মে অনুষ্ঠিত হয়। এই নির্বাচনে জাতীয় পার্টি ১৫৩টি আসনে জিতে। এছাড়া আওয়ামী লীগ ৭৬, জামায়াতে ইসলামী ১০, সিপিবি ৫, ন্যাপ (মোজাফ্ফর) ২, ন্যাপ ৫, বাকশাল ৩, জাসদ (রব) ৪, জাসদ (সিরাজ) ৩, মুসলিম লীগ ৪, ওয়ার্কার্স পার্টি ৩ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৩২ আসন পান। বিরোধী দলের বর্জনের মধ্যে ১৯৮৮ সালের ৩ মার্চ অনুষ্ঠিত হয় চতুর্থ সংসদ নির্বাচন। এই নির্বাচনে জাতীয় পার্টি ২৫১টি আসনে জিতে। আ স ম আব্দুর রব নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত বিরোধী দল ১৯, জাসদ (সিরাজ) ৩, ফ্রিডম পার্টি ২ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ২৫টি আসন পান।

নব্বইয়ের গণঅভ্যুত্থানের পর ১৯৯১ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি পঞ্চম সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এই নির্বাচনে বিএনপি ১৪০টি আসনে জিতে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়। আওয়ামী লীগ ৮৮, জাতীয় পার্টি ৩৫, জামায়াত ১৮, সিপিবি ৫, বাকশাল ৫, জাসদ (সিরাজ) ১, ইসলামী ঐক্যজোট ১, ওয়ার্কার্স পার্টি ১, এনডিপি ১, গণতন্ত্রী পার্টি ১, ন্যাপ (মোজাফ্ফর) ১ ও অন্যান্য দল ৩টি আসন পায়। বিরোধী দলের অংশগ্রহণ ছাড়া ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয় ষষ্ঠ সংসদ নির্বাচন। এই নির্বাচনে বিএনপি জিতে ২৭৮ আসন। ফ্রিডম পার্টি ১ এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ১০টি আসনে জিতে। এছাড়া গোলযোগের কারণে বাকি আসনে ভোট স্থগিত হয়ে যায়। দশম সংসদ নির্বাচনের আগে এই নির্বাচনেই সর্বাধিক সংখ্যক (৪৯ জন) প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছিলেন।

১৯৯৬ সালের ১২ জুন অনুষ্ঠিত হয় সপ্তম সংসদ নির্বাচন। এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ১৪৬ আসনে বিজয়ী হয়। বিএনপি ১১৬, জাতীয় পার্টি ৩২, জামায়াত ৩, ইসলামী ঐক্যজোট ১, জাসদ ১ ও স্বতন্ত্র ১টি আসন পায়। অষ্টম সংসদ নির্বাচন ২০০১ সালের ১ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হয়। এই নির্বাচনে বিএনপি ১৯৩টি আসনে জিতে। এতে আওয়ামী লীগ ৬২, জামায়াত ১৪, জাপা ১৪, বিজেপি ৪, জেপি (মঞ্জু) ১, ইসলামী ঐক্যজোট ২, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ ১ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৬টি আসন পান।

 

মন্তব্যঃ সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ 2253 বার।





এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ আপডেট

‘বঙ্গবন্ধু চিরঅম্লান, চিরভাস্বর, চিরঞ্জীব’ : জিএম কাদের জাতির পিতার স্বপ্নপূরণে মানুষের কল্যাণে কাজ করব: প্রধানমন্ত্রী এতিমরা একা নও, তোমাদের পাশে আমি আছি : প্রধানমন্ত্রী শোক দিবসে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি মৃত্যুহার কমে আসায় করোনা ব্রিফিং বন্ধ হয়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী ক্যানসার-কিডনি-হৃদরোগের চিকিৎসার হাসপাতাল হচ্ছে ৮ বিভাগে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্ক রক্তের সম্পর্ক : নৌপ্রতিমন্ত্রী স্বাস্থ্যবিভাগের নিয়মিত বুলেটিন সপ্তাহে দুইদিন প্রচারের আহ্বান কাদেরের ভারতের বিদায়ী হাইকমিশনারের সঙ্গে খাদ্যমন্ত্রীর সাক্ষাৎ করোনার ভ্যাকসিন আমদানির জন্য প্রয়োজনীয় বরাদ্দ রয়েছে : অর্থমন্ত্রী যে কোনো সময় বদলি হতে পারবেন প্রাথমিক শিক্ষকরা : জাকির সাম্প্রদায়িক শক্তিকে প্রতিহত করতে হবে যেকোন মূল্যে : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী সত্যিকারের রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা লোভে রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হয়না: কাদের বঙ্গবন্ধু হত্যা সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্র হত্যার ষড়যন্ত্রের অংশ : তথ্যমন্ত্রী অসাম্প্রদায়িক চেতনার মধ্য দিয়েই গড়ে তুলতে হবে সমৃদ্ধির সোপান : কাদের তরুণরাই যেকোন উন্নয়নের মূল চালিকাশক্তি : আইসিটি প্রতিমন্ত্রী প্রণব মুখার্জির দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিম্নমানের কাজ, অনিয়ম-দূর্নীতি কোন অবস্থাতেই সহ্য করা হবে না : তাজুল ইসলাম রাজনীতিতে প্রতিহিংসা ছড়ানোদের মুখে গণতন্ত্রের কথা ষড়যন্ত্রের অংশ : কাদের জন্মাষ্টমী উৎসব ভক্তগণকে শ্রীকৃষ্ণের জীবনাদর্শ অনুসরণ করতে অনুপ্রাণিত করবে : প্রধানমন্ত্রী