ঢাকা, শুক্রবার, অক্টোবর ২৩ ২০২০,

এখন সময়: ০৫:১১ মিঃ

মহাপরিচালকের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন আল্লামা শফী

ডেস্ক নিউজ : | ১১:২২ মিঃ, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২০



 

চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালকের পদ থেকে স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাতে মাদরাসার মজলিসে শুরার বৈঠকে আল্লামা শফী তার এ সিদ্ধান্তের কথা জানান। বৈঠক শেষে মজলিসে শুরার একাধিক সদস্য এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন।

শুরা সদস্যরা বৈঠকে আল্লামা শফীর পদত্যাগ গ্রহণ করে সদরে মুহতামিম হিসেবে (উপদেষ্টা) নিয়োগ দিয়ে তাকে সম্মানিত করেন। শুরা কমিটি পরবর্তী বৈঠকে মুহতামিম নিয়োগ করবেন।

বৈঠকে মাওলানা আনাস মাদানীর বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত বহাল রাখার পাশাপাশি মাওলানা নুরুল ইসলাম কক্সবাজারিকে মাদরাসা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর থেকে বেশকিছু দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করেন হাটহাজারী মাদরাসার ছাত্ররা। তারা মাদরাসার সব কটি ফটকে তালা লাগিয়ে দেয়। মাওলানা আনাস মাদানীসহ কয়েকজন শিক্ষকের কক্ষে ভাঙচুর করা হয়।

ছাত্ররা মাদরাসার ভেতরে বিক্ষোভের সময় বিভিন্ন প্রচারপত্র বিলি করেন। সেখানে তারা প্রথমে দাবি করেন, মাওলানা আনাসকে মাদরাসা থেকে অব্যাহতির। অন্য দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- আনাস কর্তৃক অব্যাহতি দেওয়া তিনজন শিক্ষককে পুনর্বহাল করা, আনাস কর্তৃক নিয়োগ করা সব অযোগ্য শিক্ষককে ছাঁটাই করা, ছাত্রদের ওপর জুলুম-হয়রানি বন্ধ করা। আল্লামা আহমদ শফী বয়স্ক হওয়ায় মহাপরিচালকের পদ থেকে অব্যহতি দিয়ে উপদেষ্টা বানানো এবং শুরা কমিটির সদস্য মাওলানা আবদুল কুদ্দুস, মাওলানা নুরুল আমীন ও মাওলানা আবুল কাসেম ফেনীসহ বিতর্কিতদের বাদ দেওয়া। 

ছাত্রদের বিক্ষোভের একপর্যায়ে বুধবার রাতে জরুরি শুরা কমিটির বৈঠক ডাকেন আল্লামা শফী। রাত সাড়ে ১০টার দিকে বৈঠক শেষ হয়। বৈঠক শেষে শুরা কমিটির সদস্য মাওলানা নোমান ফয়েজী ছাত্রদের বলেন, আল্লামা আহমদ শফীর সভাপতিত্বে বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে আনাসকে অব্যাহতি দেওয়ার। ছাত্রদের হয়রানি করা হবে না। বাকি সিদ্ধান্ত শনিবার মাদরাসার শুরার বৈঠকে নেওয়া হবে। এরপর ছাত্ররা শান্ত হন।

মাওলানা আনাস হাটহাজারী মাদরাসার শিক্ষাসচিব, মাদরাসার মহাপরিচালক ও হেফাজতে ইসলামের আমির শাহ আহমদ শফীর ছেলে। সেই সঙ্গে হেফাজত ইসলাম বাংলাদেশের প্রচার সম্পাদক।

বিক্ষোভের শুরু থেকেই ছাত্ররা মাদরাসার মূল ফটকে তালা লাগিয়ে দিলে আইনশৃঙ্খলার অবনতির আশঙ্কায় মাদরাসার বাইরে গেটের সামনে অবস্থান নেন র‍্যাব ও পুলিশের সদস্যরা।

বৃহস্পতিবারও মাদরাসা ছাত্রদের নিয়ন্ত্রণে ছিল। মাদরাসার সবগুলো ফটকে তালা ও ক্লাস বন্ধ ছিল। 

মন্তব্যঃ সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ 35 বার।





এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

০২:১৬ মিঃ, ডিসেম্বর ৮, ২০১৮

প্রশ্ন ফাঁস চক্রের ৭ জনকে গ্রেফতার

০৮:৩৩ মিঃ, সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৯

দোহার পৌরসভার ভোট স্থগিত

সর্বশেষ আপডেট

মার্কিন নির্বাচন : আগাম ভোটে এগিয়ে বাইডেন প্রথম সমাবেশে ওবামা, বললেন এবারের ভোট জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ! জাতীয় হৃদরোগ হাসপাতালে শয্যা বাড়ছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাদকাসক্তি শনাক্তে প্রত্যেক চালকের ডোপ টেস্ট করানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর নৌযান শ্রমিকদের সমস্যা দ্রুত সমাধান হবে : নৌপ্রতিমন্ত্রী পেঁয়াজে ভারতের ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে চায় সরকার শহরের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে গ্রামের উন্নয়ন হচ্ছে: আমু করোনামুক্ত পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান করোনার মধ্যেও উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হয়নি : তোফায়েল আহমেদ মোস্তাক-জিয়ার মরণোত্তর বিচার হবে : তথ্য প্রতিমন্ত্রী গ্রামীণ রাস্তা আরো মজবুত করে তৈরি করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী তথ্যপ্রযুক্তি খাতে আরও ১০ লাখ কর্মসংস্থান হবে : পলক আলুর দাম পুনঃনির্ধারণ করবে সরকার: কৃষিমন্ত্রী বিমানবন্দরগুলোকে রাতে ফ্লাইট ওঠা-নামার উপযোগী করার নির্দেশ রায়হান হত্যার সুষ্ঠু বিচারে সরকার একপায়ে দাঁড়িয়ে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্যর্থতার জন্য বিএনপি নেতৃত্বের পদত্যাগ করা উচিত বেতনে সংসার চলছে না, পদত্যাগের চিন্তা ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর সেনাবাহিনীকে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত থাকার নির্দেশ শি জিন পিংয়ের ডিসেম্বরে শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদির বৈঠক করোনা এসে পরিসংখ্যানের গুরুত্ব আরও বাড়িয়েছে