ঢাকা, শুক্রবার, অক্টোবর ২৩ ২০২০,

এখন সময়: ০৫:৩৮ মিঃ

চিরঘুমে শায়িত হয়েছেন হেফাজতে ইসলামের আমির আহমদ শফীর

স্টাফ রিপোর্টার | ০৫:১৮ মিঃ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০



যে মাদরাসায় শিক্ষকতা করে জীবন পার করেছেন, স্মৃতিঘেরা সেই প্রাঙ্গণেই চিরঘুমে শায়িত হয়েছেন হেফাজতে ইসলামের আমির শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

শনিবার বাদ জোহর (দুপুর ২টায়) হাটহাজারী মাদরাসা মাঠে জানাজা শেষে মাদরাসার কবরস্থানে দেশের সর্বজন শ্রদ্ধেয় এ আলেমেদ্বীনকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়। লাখো তৌহিদী জনতার কালেমা শাহাদাৎ ও দোয়া-দরূদের মধ্যদিয়ে তাকে দাফন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী।

দেশবরেণ্য আলেমেদ্বীন দেশের হাজার হাজার আলেমের শিক্ষক আল্লামা শাহ আহমদ শফীকে শেষ বিদায় জানাতে আসা মানুষের ঢলে উত্তর চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলা জনসমুদ্রে পরিণত হয়। কয়েক বর্গ কিলোমিটার এলাকায় নামাজে জানাজায় শরিক হন লাখ লাখ মানুষ। মরহুমের বড় পুত্র মাওলানা মোহাম্মদ ইউসুফ নামাজে জানাজায় ইমামতি করেন। তার আগে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি তার পরিবারের পক্ষ থেকে পিতা আল্লামা শাহ আহমদ শফীর জন্য দোয়া চান। এ সময় জানাজায় শরিক লাখো জনতা কান্নায় ভেঙে পড়ে। আল্লামা শফীর অগণিত ছাত্র চিৎকার করে কাঁদতে থাকেন। জানাজা পূর্ব লাখো মানুষের সমাবেশে এক শোকাবহ পরিবেশের সৃষ্টি হয়। সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে স্থানীয় সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, এদেশে মাদরাসা শিক্ষা তথা কওমি ধারার শিক্ষা বিস্তার ও প্রসারে আল্লামা শাহ আহমদ শফী গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। তার একান্ত প্রচেষ্টায় এদেশের কওমি মাদরাসার সনদের স্বীকৃতি পাওয়া গেছে। নামাজে জানাজা শেষে আল্লামা শাহ আহমদ শফীর অর্ধশত বছরের স্মৃতি বিজড়িত মাদরাসা ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে বায়তুল আতিক জামে মসজিদের সামনের কবরস্থানে তার কফিন নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

এর আগে সকালে ৯টায় তার কফিন ঢাকা থেকে হাটহাজারী মাদরাসায় আনা হয়। মাদরাসার একটি শ্রেণিকক্ষে কফিন সকলের দেখার জন্য রাখা হয়। লাখো জনতা সারিবদ্ধভাবে তাকে শেষবারের মতো দেখেন। মাদরসা শুরা কমিটির সিদ্ধান্ত এবং আল্লামা শফীর অছিয়ত অনুযায়ী হাটহাজারী মাদরাসায় জানাযা ও দাফন সম্পন্ন করার সিদ্ধান্ত নেয় শুরা কমিটি। প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে সর্বাত্মক সহযোগিতা দেয়া হয়।

মন্তব্যঃ সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ 34 বার।




সর্বশেষ আপডেট

মার্কিন নির্বাচন : আগাম ভোটে এগিয়ে বাইডেন প্রথম সমাবেশে ওবামা, বললেন এবারের ভোট জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ! জাতীয় হৃদরোগ হাসপাতালে শয্যা বাড়ছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাদকাসক্তি শনাক্তে প্রত্যেক চালকের ডোপ টেস্ট করানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর নৌযান শ্রমিকদের সমস্যা দ্রুত সমাধান হবে : নৌপ্রতিমন্ত্রী পেঁয়াজে ভারতের ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে চায় সরকার শহরের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে গ্রামের উন্নয়ন হচ্ছে: আমু করোনামুক্ত পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান করোনার মধ্যেও উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হয়নি : তোফায়েল আহমেদ মোস্তাক-জিয়ার মরণোত্তর বিচার হবে : তথ্য প্রতিমন্ত্রী গ্রামীণ রাস্তা আরো মজবুত করে তৈরি করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী তথ্যপ্রযুক্তি খাতে আরও ১০ লাখ কর্মসংস্থান হবে : পলক আলুর দাম পুনঃনির্ধারণ করবে সরকার: কৃষিমন্ত্রী বিমানবন্দরগুলোকে রাতে ফ্লাইট ওঠা-নামার উপযোগী করার নির্দেশ রায়হান হত্যার সুষ্ঠু বিচারে সরকার একপায়ে দাঁড়িয়ে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্যর্থতার জন্য বিএনপি নেতৃত্বের পদত্যাগ করা উচিত বেতনে সংসার চলছে না, পদত্যাগের চিন্তা ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর সেনাবাহিনীকে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত থাকার নির্দেশ শি জিন পিংয়ের ডিসেম্বরে শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদির বৈঠক করোনা এসে পরিসংখ্যানের গুরুত্ব আরও বাড়িয়েছে