তালেবানদের কাছে শান্তি প্রস্তাব নিয়ে যেতে চান ইমরান খান

ডেস্ক নিউজ | ০৫:৩৯ মিঃ, জুলাই ২৪, ২০১৯



মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম রাষ্ট্রীয় সফরকালে মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) তিনি যুক্তরাষ্ট্রের পিস ইন্সটিটিউটে এক আলোচনায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, দেশে ফিরেই শান্তি আলোচনার প্রস্তাব নিয়ে তালেবানদের কাছে যেতে চান। ১৮ বছর ধরে আফগানিস্তানে চলমান যুদ্ধের অবসান ঘটানোই হবে তার এ সফরের লক্ষ্য।  

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁকে হোয়াইট হাউজে অতিথি হিসেবে বরণ করে নেন।

ইমরান খান আরও বলেন, আগে তিনি আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানির সাথে আলোচনা করেছেন। এ পর্যায়ে সরকারের সাথে শান্তি আলোচনায় বসতে তিনি তালেবানদের কাছে বার্তা নিয়ে যাবেন। নির্বাচনে বিজয়ী হবার পরই (জুলাই ২০১৮) তিনি তালেবান নেতাদের সাথে যোগাযোগ করেছিলেন কিন্তু কাবুলের পরিবেশ অনুকূলে না থাকায় সেসময় বৈঠকে বসা যায় নি।

কয়েকদফা তালেবানের পক্ষ থেকে ইমরান খানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি তাদেরকে সামরিক পদ্ধতিতে কোন সমাধান সম্ভব নয় বলে জানিয়েছিলেন।

এদিকে, মার্কিন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী মাইক পম্পেও এর সাথে ইমরান খানের সাক্ষাতের পর তিনি বলেছেন, আফগানিস্তানের শান্তি প্রক্রিয়ায় পাকিস্তানকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে।

কিন্তু ইমরান খান তাঁকে জানিয়েছেন, এ প্রক্রিয়া অতটা সহজ হবে না। কারণ তালেবানের কেন্দ্রীয় কমাণ্ড এখন কয়েকটি ভাগে বিভক্ত। তবে সেপ্টেম্বরে আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তালেবানদের অংশ নেবার সুযোগ দিলে হয়তো পরিস্থিতি অন্যরকমও হতে পারে।

গত ৯ জুলাই থেকে কাতারের দোহায় চলমান শান্তি আলোচনা কোন রকম ফলাফল ছাড়াই শেষ হবার পর, আফগানিস্তানে নিযুক্ত মার্কিন শান্তি আলোচনার সূত্রধর জালমে খালিলাজাদ আবারও দোহায় তালেবানের সাথে এক বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন।

তার আগে তালেবানের পক্ষ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, এই মুহূর্তে আফগান সরকারের সাথে সরাসরি আলোচনার কোন সম্ভাবনা নেই।

তবে, ১৯৯০ সালে তালেবানের উত্থানের সময় পাকিস্তান খুব বড় ভূমিকা রেখেছিল। সেই সূত্রে চলমান শান্তি আলোচনার মধ্যস্থতাকারী হিসেবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী  ইতিবাচক ফলাফল এনে দিতে পারবেন বলে ওয়াশিংটনের পক্ষ থেকে মনে করা হচ্ছে।

মন্তব্যঃ সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ 488 বার।





এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

০২:০৭ মিঃ, সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৯

অরুণাচল সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে চীনা সৈন্য

সর্বশেষ আপডেট

পরমাণু যুদ্ধ যেকোনো মূল্যে এড়িয়ে চলতে হবে জিয়াউর রহমান তরুণ প্রজন্ম নষ্টের জন্য দায়ী পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে স্পষ্ট রোডম্যাপ চেয়েছেন বিএনপির মুখে দুর্নীতি বিরোধী বক্তব্য ভূতের মুখে রাম নাম যুক্তরাষ্ট্র থেকে ১০ লাখ কোভ্যাক্সের টিকা আসবে কোনোভাবেই যেন সুন্দরবন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন সরকার গণমাধ্যমের মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে সমুন্নত রেখেছে ক্ষমতা ধরে রাখতে হাজার হাজার গাছ কেটে ফেলেছিলেন জিয়াউর রহমান নিউইয়র্কে বঙ্গবন্ধু লাউঞ্জের উদ্বোধন করলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্ষমতালিপ্সু আলেম নামধারীদের আইনের আওতায় আনা হয়েছে এসএসএফকে প্রশিক্ষিত-দক্ষ করা হচ্ছে যুগের সঙ্গে তালমিলিয়ে আবারও মুসলিমদের সমর্থনে জোরালো কন্ঠ জেসিন্ডার বাইডেন ইসরায়েলে সরকার বদল বেনেটকে স্বাগত জানালেন কে কোন পদে ইসরাইলের নতুন সরকারে করোনা নিয়ে কোনো রকম ঝুঁকি নিতে না করেছেন প্রধানমন্ত্রী ৬ দিন বিরতির পর বসেছে সংসদ অধিবেশন গণতন্ত্র বিকাশে সবচেয়ে বড় বাধা বিএনপির হত্যা ও ষড়যন্ত্রের রাজনীত মাস্ক না পরায় ব্রাজিলের প্রেসিডেন্টকে জরিমানা র‍্যাঙ্ক ব্যাজ পরানো হলো বিমানবাহিনীর নতুন প্রধানকে