সমৃদ্ধশালী ব-দ্বীপ গড়তেই শতবর্ষ মেয়াদি ডেল্টা প্ল্যান: প্রধানমন্ত্রী

ডেস্ক নিউজ: | ১১:৪২ মিঃ, জানুয়ারি ২০, ২০২১



প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং পানি ও খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করে জলবায়ুর অভিঘাত মোকাবেলাসহ বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে সরকার ‘ডেল্টা প্ল্যান-২১০০’ প্রণয়ন করেছে। প্রধানমন্ত্রী বুধবার সকালে একাদশ জাতীয় সংসদের একাদশ অধিবেশনে তার জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য মশিউর রহমান রাঙ্গার একটি তারকা চিহ্নিত প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, নিরাপদ ও জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব সহনীয় সমৃদ্ধশালী ব-দ্বীপ গড়ার লক্ষ্য নিয়েই তার সরকার বাংলাদেশ ‘ব-দ্বীপ পরিকল্পনা-২১০০’ প্রণয়ন করেছে। শেখ হাসিনা বলেন, বিশেষত এটি জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবকে অতিক্রম করে দীর্ঘমেয়াদে দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, জল ও খাদ্য সুরক্ষার পাশাপাশি পরিবেশের স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করবে।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ পর্বটি টেবিলে উত্থাপিত হয়। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ ব-দ্বীপ পরিকল্পনা-২১০০’ উচ্চতর পর্যায়ের ৩টি জাতীয় অভীষ্ট লক্ষ্য বাস্তবায়নে প্রণীত। ‘যেগুলো হচ্ছে- ২০৩০ সালের মধ্যে চরম দারিদ্র্য দূরীকরণ এবং এই একই সময়ের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশের মর্যাদা অর্জন এবং ২০৪১ সাল নাগাদ একটি উন্নত সমৃদ্ধ দেশের মর্যাদা অজন করা।

শেখ হাসিনা এ সম্পর্কে আরও বলেন, আন্তঃদেশীয় পানিসম্পদ ব্যবস্থাপনা, নৌপরিবহন স্যানিটেশন ইত্যাদি সংশ্লিষ্ট সব খাত বিবেচনায় রেখে দেশের টেকসই অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বজায় রাখার জন্য একটি দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ অপরিহার্য ছিল। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ ব-দ্বীপ পরিকল্পনা-২১০০’ একটি দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা সমগ্র একুশ শতকব্যাপী ১৭টি পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার মাধ্যমে বাস্তবায়িত হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই মহাপরিকল্পনার আওতায় প্রথম পর্যায়ে ২০৩০ সালের মধ্যে ৮০টি প্রকল্প বাস্তবায়নের লক্ষ্যে নির্ধারণ করা হয়েছে। এর জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ৩৭ বিলিয়ন ইউএস ডলার, যা জিডিপির আড়াই শতাংশ। ৮০টি প্রকল্পের মধ্যে বর্তমানে ২৭টি প্রকল্প সরকার এবং পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাস্তবায়নাধীন রয়েছে। তিনি বলেন, ডেল্টা ফান্ডের কাঠামো ও ফান্ড পরিচালনার জন্য নীতিমালা প্রণয়নের কাজ বর্তমানে প্রক্রিয়াধীন। এ প্রসঙ্গে ১০ বছর মেয়াদি প্রথম প্রেক্ষিত পরিকল্পনা (২০১০ থেকে ২০২১) এবং দ্বিতীয় প্রেক্ষিত পরিকল্পনা (২০২১-৪১) প্রণয়নেও সরকারের পদক্ষেপ উল্লেখ করেন তিনি।

মন্তব্যঃ সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ 39 বার।





এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

০৬:৫৬ মিঃ, জুলাই ১১, ২০১৯

মন্ত্রিসভার আকার বাড়ছে

সর্বশেষ আপডেট

জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিল করা হয়নি: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী বিএনপির ৭ মার্চের কর্মসূচি পালন ভণ্ডামি : কাদের ফিলিস্তিনে ইসরাইলের যুদ্ধাপরাধ তদন্তে বাধা দেবে যুক্তরাষ্ট্র : কমলা প্রতিবেশী দেশগুলোর সমস্যা আলোচনা ও সমঝোতার মাধ্যমে সমাধান করা উচিত : প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর খুনের নেপথ্যে যারা রয়েছেন তাদের বিচার হয়নি : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বিএনপির এক নেতার উসকানিমূলক বক্তব্যে দেশবাসী ক্ষুব্ধ বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কমলা হ্যারিসের বৈঠক এইচ টি ইমাম তাঁর প্রতিটি কর্মে দেশপ্রেমের উন্মেষ ঘটিয়েছেন: তাপস গবেষকদের মানবকল্যাণে কাজ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর মুশতাকের স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জীবন্ত মানুষকে আগুনে পুড়িয়ে মেরে কৃত্রিম দরদ দেখাচ্ছে বিএনপি : কাদের এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে আরো দুই মামলা মে মাসের মধ্যে সবাইকে টিকা প্রদানের ঘোষণা বাইডেনের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের : স্বাস্থ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফর : ঢাকা জোর দিচ্ছে কানেক্টিভিটিতে কথায় কথায় বিবৃতি দেয়ার পুরনো অভ্যাস পরিহার করুন : বিদেশিদের প্রতি তথ্যমন্ত্রী হোয়াইট হাউস ছাড়ার আগেই গোপনে টিকা নেন ট্রাম্প-মেলানিয়া ২৬ মার্চ ঢাকা-জলপাইগুড়ি ট্রেন উদ্বোধন করবেন হাসিনা-মোদি সময়মতো টিকা সরবরাহে মানুষের যেন খাদ্য সমস্যা না হয় : প্রধানমন্ত্রী